শিশুর দাঁতের যত্নে কী করবেন, কী করবেন না

শিশুদের দাঁত ক্ষয়ে যাওয়ার বিভিন্ন কারণ রয়েছে। শিশুর দাঁতের যত্নে বাইরের প্যাকেটজাত খাবার, চকোলেট কিংবা ক্যান্ডি অতিরিক্ত পরিমাণে খাওয়া। এছাড়া শিশুর দাঁতের যত্নের অভাবেও দ্রুত নষ্ট হয়ে যেতে পারে। টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদন জানাচ্ছে শিশুর দাঁতের যত্নে করণীয় সম্পর্কে।

শিশুর-দাঁতের-যত্নে-কী-করবেন,-কী-করবেন-না


শিশুর
দাঁত যখন ওঠে, তখন থেকেই প্রাথমিক যত্ন শুরু করতে হবে। প্রতিবার দুধ খাওয়ার পর পাতলা নরম কাপড় দিয়ে দাঁত মুছে দিতে হবে।

চকোলেট বা ক্যান্ডি অতিরিক্ত পরিমাণে দেয়া যাবে না। এগুলো খাওয়ার পর অবশ্যই শিশুর দাঁতের যত্নে ব্রাশ করিয়ে দেবেন।

সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে শিশুর দাঁত ব্রাশ করার অভ্যাস গড়ে তুলুন।

প্রোটিন সমৃদ্ধ খাবার খেলে শিশুর মাড়ি দাঁত ভালো থাকে। তাই মুরগির মাংস, ডিম বেশি শিশুর খাদ্য তালিকায় রাখবেন অবশ্যই।

ডার্ক চকোলেট দাঁতের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সাহায্য করে। অল্প পরিমাণে ডার্ক চকোলেট খাওয়াতে পারেন শিশুকে।


শিশুর-দাঁতের-যত্নে-কী-করবেন,-কী-করবেন-না


শিশু
যেন পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পান করে সেদিকে খেয়াল রাখুন। পানি মাড়িকে শুকনো হতে দেয় না এবং দাঁতের এনামেল ভালো রাখে।

মজবুত দাঁতের জন্য ক্যালসিয়াম সমৃদ্ধ খাবার খাওয়ান শিশুকে। দুধ বিভিন্ন দুগ্ধজাত খাবার থেকে পাওয়া যায় পর্যাপ্ত ক্যালসিয়াম।

শিশুকে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি খাওয়ান। কমলা, সবুজ শাকসবজি এই ভিটামিনের অন্যতম উৎস। ভিটামিন সি দাঁতে জমে থাকা ব্যাকটেরিয়া নষ্ট করে দেয়।

খাওয়ার সময় টিভি দেখে না খাইয়ে সকলে মিলে একসঙ্গে খাওয়ার চেষ্টা করুন। এতে শিশুর চিবিয়ে খাওয়ার প্রবণতা তৈরি হবে এবং খাবার চিবিয়ে খেলে দাঁতও ভালো থাকবে।

আপেল, আখ শক্ত ফল খাওয়ান শিশুকে। দাঁত ভালো থাকবে।

আরো জানুন:

Post a Comment

0 Comments